সিরাজদিখানে সম্পত্তির জন্য ভাইয়ের হাতে ভাই রক্তাত্ত জখম

সিরাজদিখান (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি: সিরাজদিখানে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেড়ে বড় ভাইদের হাতে ছোট ভাই রক্তাত্ত জখমের অভিযোগ উঠেছে। উপজেলা জৈনসার ইউনিয়নের কাঠালতলী গ্রামের মৃত কাশেম সরদারের ছেলে মো. মিলন সরদার (৩৩) কে কিল, ঘুষি ও পিটিয়ে রক্তত্ত জখম করা হয়।গুরুতর অবস্থায় তাকে সিরাজদিখান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এ বিষয়ে সিরাজদিখান থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়। জানা যায়, দীর্ঘ নি যাবত মিলনের সাথে তার দুই ভাই জুয়েল সরদার (৩৮) ও সোহেল সরদার (৩৬) জমি, সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ চলছে। জোড়পূর্বক মিলনকে সম্পত্তি লিখে দেয়ার জন্য বড় ২ ভাই চাপ প্রয়োগ করে আসছে। মিলন মাকে নিয়ে গ্রামের বাড়ীতে বসবাস করে অন্য ২ ভাই ফতল্লায় বসবাস করে। গত মঙ্গলবার বিকালে জুয়েল, সোহেল বাড়ীতে এসে মিলনের উপর সম্পত্তির বিষয়ে চাপ দিলে কথা কাটাকাটি এক পর্যায় মিলনকে কিল, ঘুষি, পিটিয়ে রক্তাত্ত জখম করে। মা বাধা দিতে আসলে মাকেও মারধর করে। মিলনের চিৎকারে আশে পাশের লোক এগিয়ে আসলে প্রাণনাশক হুমকি দিয়ে তারা চলে যায়। এলাকাবাসী অভিযোগ করে বলেন জুয়েল ও সোহেল অনেক টা সন্ত্রাসি দের মত । কিছুদিন পরপর এসে তাদের মা ও মিলনকে মারধর করে। ভুক্তভোগী মিলন জানান, আমার সম্পত্তির জন্য ২ ভাই আমাকে কিছুদিন পরপর মারধর করে। আমি জীবনের নিরাপত্তা নাই। তারা কোন বিচার মানে না। আমার সব সম্পত্তি লিখে দিতে বলে। মিলনের দুলাভাই রহিম চৌধরী জানান, কিছু দিন পরপর সম্পত্তির জন্য মিলনকে মারধর করে হাসপাতালে ভর্তি করে। অনেক বার বিচার সালিশ করেও কোন সমাধান হয়নি। বড় ২ জন কোন বিচার মানেনা। যেভাবে মারধর করে কোন দিন জানি একবারে মেরে ফেলে। অভিযুক্ত সোহেল জানান, আমার কাছে জানার কি আছে? ১০ বার মারছি। তার থেকে জিজ্ঞাস করেন। সিরাজদিখান থানার ওসি ফরিদ উদ্দিন জানান, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।সিরাজদিখানে সম্পত্তির জন্য ভাইয়ের হাতে ভাই রক্তাত্ত জখম সিরাজদিখান (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি: সিরাজদিখানে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেড়ে বড় ভাইদের হাতে ছোট ভাই রক্তাত্ত জখমের অভিযোগ উঠেছে। উপজেলা জৈনসার ইউনিয়নের কাঠালতলী গ্রামের মৃত কাশেম সরদারের ছেলে মো. মিলন সরদার (৩৩) কে কিল, ঘুষি ও পিটিয়ে রক্তত্ত জখম করা হয়।গুরুতর অবস্থায় তাকে সিরাজদিখান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এ বিষয়ে সিরাজদিখান থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়। জানা যায়, দীর্ঘ নি যাবত মিলনের সাথে তার দুই ভাই জুয়েল সরদার (৩৮) ও সোহেল সরদার (৩৬) জমি, সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ চলছে। জোড়পূর্বক মিলনকে সম্পত্তি লিখে দেয়ার জন্য বড় ২ ভাই চাপ প্রয়োগ করে আসছে। মিলন মাকে নিয়ে গ্রামের বাড়ীতে বসবাস করে অন্য ২ ভাই ফতল্লায় বসবাস করে। গত মঙ্গলবার বিকালে জুয়েল, সোহেল বাড়ীতে এসে মিলনের উপর সম্পত্তির বিষয়ে চাপ দিলে কথা কাটাকাটি এক পর্যায় মিলনকে কিল, ঘুষি, পিটিয়ে রক্তাত্ত জখম করে। মা বাধা দিতে আসলে মাকেও মারধর করে। মিলনের চিৎকারে আশে পাশের লোক এগিয়ে আসলে প্রাণনাশক হুমকি দিয়ে তারা চলে যায়। এলাকাবাসী অভিযোগ করে বলেন জুয়েল ও সোহেল অনেক টা সন্ত্রাসি দের মত । কিছুদিন পরপর এসে তাদের মা ও মিলনকে মারধর করে। ভুক্তভোগী মিলন জানান, আমার সম্পত্তির জন্য ২ ভাই আমাকে কিছুদিন পরপর মারধর করে। আমি জীবনের নিরাপত্তা নাই। তারা কোন বিচার মানে না। আমার সব সম্পত্তি লিখে দিতে বলে। মিলনের দুলাভাই রহিম চৌধরী জানান, কিছু দিন পরপর সম্পত্তির জন্য মিলনকে মারধর করে হাসপাতালে ভর্তি করে। অনেক বার বিচার সালিশ করেও কোন সমাধান হয়নি। বড় ২ জন কোন বিচার মানেনা। যেভাবে মারধর করে কোন দিন জানি একবারে মেরে ফেলে। অভিযুক্ত সোহেল জানান, আমার কাছে জানার কি আছে? ১০ বার মারছি। তার থেকে জিজ্ঞাস করেন। সিরাজদিখান থানার ওসি ফরিদ উদ্দিন জানান, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে