সাকিব না থাকায় বাংলাদেশের এমন দুর্দশা: করুনারত্নে

0
53

ফর্মের মগডালে থাকা সাকিব আল হাসানের অনুপস্থিতি হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছে বাংলাদেশ। প্রতিপক্ষ দলের খেলোয়াড় হয়েও সেটি বুঝতে পেরেছেন শ্রীলংকা অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে। তিনি মনে করেন, সাকিব না থাকায় লংকানদের বিপক্ষে এক ম্যাচ বাকি থাকতেই সিরিজ হেরেছেন টাইগাররা।

বিশ্বকাপে ফর্মের তুঙ্গে ছিলেন সাকিব। ব্যাট হাতে ৬০৬ রানের পাশাপাশি বোলিংয়ে ১১ উইকেট শিকার করেন তিনি। অনন্য অলরাউন্ডিং নৈপুণ্যে ছিলেন টুর্নামেন্ট সেরা দৌড়ে।

তবে হজে যাওয়ার জন্য বাংলাদেশ দলের সঙ্গে শ্রীলংকা সফরে যাননি বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। তাকে ছাড়া ভারসাম্য হারিয়েছেন সফরকারীরা। সেই সুযোগে এক ম্যাচ আগেই তিন ওয়ানডে সিরিজ ২-০ তে জিতে নিয়েছেন স্বাগতিকরা।

সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে গড়াবে বুধবার। কলম্বোর প্রেমাদাসা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বিকাল ৩টায়। এর আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে করুনারত্নে বলেন, মূল ফ্যাক্টর হচ্ছে সাকিবের অনুপস্থিতি। সে বাংলাদেশ দলে দারুণ ভূমিকা পালন করে। আমার মনে হয়, তাকে ছাড়া ভারসাম্যপূর্ণ দল গড়তে সমস্যা হচ্ছে তাদের। অধিকন্তু বিশ্বকাপের পর আমরা ঘুরে দাঁড়িয়েছি। আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে দল হিসেবে খেলছি। এ কারণেই আমরা ভালো করেছি। খেলছি।

তিনি বলেন, বিশ্বকাপ দেখেন- সাকিব-মুশফিকের কারণে বাংলাদেশ ভালো খেলেছে। এ দুই ব্যাটসম্যান পুরো বিশ্বকাপে দলকে টেনেছে। তারা দারুণ ব্যাটিং করেছে এবং ধারাবাহিকভাবে বড় রান সংগ্রহ করেছে। যে কারণে দলটি ২৫০ থেকে ৩০০ রানের বেশি করতে পেরেছে।

বাংলাদেশ দলে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের বিকল্প দেখছেন না করুনারত্নে। ব্যাটিং-বোলিং দুই বিভাগেই অবদান রাখা সাকিবের অনুপস্থিতি ফলে প্রভাব ফেলছে বলে মনে করেন তিনি। লংকান দলপতি বলেন, সাকিব না থাকলে ব্যাটিং-বোলিং দুই বিভাগেই অভাব অনুভূত হয়। আমি তার বিকল্প কাউকেই দেখি না। ওর জায়গায় ব্যাটিং ও বোলিংয়ে আলাদা দুজনকে নিতে হচ্ছে তাদের। যে কারণে দলে ভারসাম্য আনতে পারছে না তারা। সেটি অবশ্যই ফলে প্রভাব ফেলছে।

করুনারত্নের মতো বাংলাদেশের ক্রিকেটাররাও নিশ্চয়ই সাকিবের অনুপস্থিতি অনুভব করছেন। দুঃসময়ে দলের সেরা ক্রিকেটারের অভাব ভীষণভাবে অনুভব করছেন লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। যদিও দলে নেই এমন কাউকে নিয়ে কথা বলার পক্ষে নন বাংলাদেশ অধিনায়ক তামিম ইকবাল।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে