সিরাজদিখানে স্বামীকে মারধরের পর স্ত্রীকে গণধর্ষণ আটক ১

সিরাজদিখান(মুন্সীগঞ্জ)প্রতিনিধি : মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে স্বামীকে মারধর করে এক গৃহবধূকে কয়েক দফায় ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে । রবিবার বিকাল ৫ টায় উপজেলার বাসাইল ইউনিয়নের পলাশপুর গ্রামের ডিসি প্রজেক্টে ঘটনাটি ঘটে। এলাকাবাসী জড়িত থাকার অভিযোগে সোহেল (২৩) নামে ১ জনকে আটক করে সিরাজদিখান থানা পুলিশের কাছে সোর্পদ করেছে । আটক সোহেল দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানার বাঘাপুর গ্রামের ওসমান মিয়ার ছেলে ।  পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, ধর্ষণের শিকার ওই গৃহবধূকে নিয়ে তাঁর স্বামী পলাশপুরের ডিসি প্রজেক্টে ঘুড়তে আসলে আটক সোহেল,উপজেলার পলাশপুর গ্রামের মৃত সালাউদ্দিনের পুত্র মো.নাছির উদ্দিন(২৪) এবং একই গ্রামের খোরশেদ আলমের পুত্র মো. শামীম মিয়া (২৩) এই ৩ জনে গৃহবধুর স্বামীকে মারধর করে গৃহবধুকে পালাক্রমে ধর্ষন করে এবং মোবাইলে ধর্ষনের ভিডিও ধারন করে ।স্বামীর চিৎকারে এলাকাবাসী সোহেলকে আটক করে পুলিশে দেয় কিন্তু বাকী দুজন পালিয়ে যায় । এ ঘটনায় গতকাল রবিবার রাতে ধর্ষিতা বাদী হয়ে আটক সোহেলসহ নাছির এবং শামীম ৩ জনের নামে গণধর্ষনে মামলা করেছে ।   সিরাজদিখান থানার ওসি মো.ফরিদ উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আমরা ১ জনকে আটক করেছি এবং ধর্ষনের ভিডিও উদ্ধার কিেছ । এ ঘটনায় ধর্ষিতা বাদী হয়ে ৩ জনকে আসামী করে ধর্ষন মামলা করেছেন এবং বাকী ২ জন আসামীকে ধরার চেষ্টা চলছে ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে